ট্রেডারস এবং তাদের দুশ্চিন্তাঃ এর থেকে বেড় হয়ে চিন্তামুক্তভাবে ট্রেড করার কিছু সহজ উপায়।

0 42

আপনার ফাইনানশিয়াল কেরিয়ার সেট করতে প্রাথমিকভাবে যাই দরকার হউক না কেন তার পেছনে লউ স্ট্রেস খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন রাখে তার সাথে রিলেক্সড জীবনও কম ভুমিকা পালন করার থেকে পেছনে নয়।কিন্তু অনেক সময় দেখা যায় যে লং ওয়ার্কিং টাইম এবং হাই-টেনশন ওয়ার্কপ্লেস চাকুরির সাইড ইফেক্ট হিসেবে কাজ করে। আর এটা সত্য যে অনেকেই এই সব এর মধ্যে দিয়ে কাজ করে থাকে।

সাধারনত সবাই তাদের কাজের নেচার সম্পর্কে কমপ্লেইন করে করে থাকে এবং নিজেদেরকে কাজের মাঝে একটু রিলিফ দিয়ে বাসায় তাড়াতাড়ি ফিরতে চায় কোনরকম কাজ সম্পর্কে চিন্তা না করে।

রিসার্চ এর থেকে দেখা যায় যে যারা স্ট্রেস্ফুল পরিস্থিতিতে অবস্থান করে থাকে এবং মনে করে যে তাদের কাজগুলো খুবই কষ্টসাধ্য এবং স্ট্রেস্ফুল তাদের এই মুহুরতেই এরকম চিন্তা মাথা থেকে ঝেরে ফেলতে হবে যা কিনা বরং নেগেটিভ ফলাফল আনতে পারে কার্যক্ষেত্রে। এটা শুনতে অদ্ভুত লাগলেও সত্যি যে স্ট্রেস ই একমাত্র জিনিস যা কিনা আপনাকে সাফল্য আনতে শত ভাগ সাহায্য করে থাকে যা কিনা কাজের প্রতি আপনাকে আরও ডিভটেড করে দেয় কিন্তু এর সাথে সাথে এটা অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে যে ঐ স্ট্রেসটা হতে হবে সহনীয়। যদি স্ট্রেস অসহনীয় অথবা কোনভাবে না নেয়া যায় তাহলে তা একটি সমস্যা হয়ে কাজের ক্ষেত্রে বরং বাধা সৃষ্টি করতে পারে সঠিক পরিমান স্ট্রেস এর কাড়নে সাফল্য এবং কার্যক্ষমতা অনেক বেড়ে যায়।

বেলেন্স খুজে যেতে হবে এমনকি যখন এটা অসম্ভব মনে হবে

সফল ট্রেডারসরা সবসময় বেলেন্স এর খোজে কিভাবে থাকতে এবং পেতে হয় তা শিখে থাকে এমনকি যখন তারা সকল প্রকার স্ট্রেস এবং টেনশন এর ভেতর দিয়ে তাদের লাইফ পরিচালনা করতে থাকে। মার্কেটের নতুন ট্রেডারসরা মাঝেমাঝে একটু স্ট্রেসড আউট হয়ে যায় যা কিনা তাদের ট্রেডিং এর ক্ষেত্রে বাধা হয়ে থাকে, কিন্তু এটা সত্য যে আপনি যদি আপনার কাজকে ভালোবাসেন তাহলে আপনার কাজের স্ট্রেস অনেকটা এম্নিতেই কমে যাবে।

এটা আসলেই খুবই কঠিন ওয়ার্ক-লাইফ এবং কাজ একই সাথে বেলেন্স করা যেখানে ৯-৫ পর্যন্ত ওয়ার্কপ্লেস এ থাকতে হয় যদিও একটি comfortable এবং well-designed ওয়ার্কপ্লেস পোরোপুরি অন্য একটি জগত এনে দিতে পারে।

কিছু সময় বেড় করুন যা কিনা আপনাকে সবসময় মানসিকভাবে চাঙ্গা রাখে

আপনার স্ট্রেস কমাতে অবশ্যই আপনাকে দিনের একটি নির্দিষ্ট টাইম বেড় করতে হবে যখন কিনা আপনি ঐ সময়টাতে physical exercise করতে পারবেন। অথবা আপনি গলফ কিংবা সেসব activities গুলো করুন যা কিনা আপনার পালস কমাতে সাহায্য করে।

তাই আপনি যদি সেই ব্যক্তিটি হোন যিনি কিনা খুব rush এবং fast-paced ওয়ার্ক environment এর সাথে নিজেকে খাপ খাওয়াতে সক্ষম তাহলে এটা খুবই ভালো। আর যদি আপনি কিভাবে প্রেশার ম্যনেজ এবং স্ট্রেসকে কাজে লাগাতে হয় তা শিখে ফেলেন তাহলে তা আপনাকে সফল ফাইন্যান্স কেরিয়ার এনে দিতে বাধ্য।

START TRADING

or practice on DEMO ACCOUNT

Trading CFDs Involves high risk of loss

Leave A Reply

Your email address will not be published.